সর্বশেষ:

ভক্ত 'বিরক্ত করাতেই' মেজাজ হারান সাকিব »

ভক্ত ‘বিরক্ত করাতেই’ মেজাজ হারান সাকিব
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ফ্লোরিডায় এক দর্শকদের দিকে সাকিব আল হাসানের তেড়ে যাওয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে। কি কারণে ওই দর্শকের দিকে ওভাবে তেড়ে গিয়েছিলেন সাকিব তা জানিয়েছেন সেসময় সেখানে উপস্থিত থাকা আরেক দর্শক।

সোমবার ফ্লোরিডায় শেষ টি-টোয়েন্টিতে ডি/এল মেথডে ১৯ রানে জিতে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজও জেতে ২-১ ব্যবধানে। দর্শকের সঙ্গে সাকিবের ওই ঘটনা তৃতীয় ম্যাচ জেতার পরেই।

 

মঙ্গলবার সকাল থেকে ভাইরাল হওয়া ৫৮ সেকেন্ডের এক ভিডিওতে দেখা যায় হাফ প্যান্ট ও বাংলাদেশের জার্সি পড়া এক দর্শক দুহাত পকেটে দিয়ে সাকিবকে কিছু একটা বলছিলেন। সাকিব ঘুরে তার দিকে যান, তখন হাত দিয়ে আগ্রাসী ইঙ্গিত করেন। খানিক পর ফিরে গিয়ে আবার এগিয়ে আসেন সাকিব। তখন অন্য দর্শকরা তাকে থামানোর চেষ্টা করেন।

‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনের ব্যাপারে প্রশ্ন করায় সাকিব তেড়ে গেছেন বলে ক্যাপশন দিয়ে ভিডিওটি কেউ কেউ ছড়িয়ে দিতে থাকেন ফেসবুকে। তবে সেখানে উপস্থিত থাকার দাবি করা শেখ মিনহাজ হোসেইন নামের এক দর্শক বলছেন, ‘ওখানে নিরাপদ সড়ক আন্দোলন সংক্রান্ত কোন প্রশ্ন ছিল না।’

যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা থেকে ফ্লোরিডায় খেলা দেখতে যাওয়া মিনহাজ ফেসবুকে লিখেছেন ওই ভক্তের বারবার বিরক্ত করাতেই মেজাজ ধরে রাখতে পারেননি সাকিব , ‘সাকিব এক দর্শকের সাথে খুব রাগ করছেন, এমন একটা ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে। ওখানে ক্যাপশন হচ্ছে যে, একজন লোক সাকিবকে নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের ব্যাপারে প্রশ্ন করায় সাকিব তেড়ে গেছেন!

‘প্রথমে বলে নেই, যত যাই হোক, সাকিবের ওভাবে তেড়ে আসা ঠিক হয়নি। আমি সাকিবের তেড়ে আসা সমর্থন করছি না। কিন্তু আসলে প্রশ্নটা মোটেও নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের ব্যাপারে ছিল না। ওই লোক সাকিবের কাছে বারেবার অটোগ্রাফ চাইছিল। সাকিব প্রথমে একটা সেলফি তুলেছে। এরপর আবার ভিডিও করতে চায়। সাকিব তখন ম্যাচ শেষে টায়ার্ড। সাকিব পারবে না বলে সামনে চলে যায়। লোকটা পিছন থেকে “ভাব মারায়” বলে বাজ ভাষা ব্যবহার করে। সাকিব তখন চেতে ফেরত আসে!’

মিনহাজ দাবি করেছেন সেসময় টিম হোটেলে ছিলেন তিনিও, ‘আমাকে বিশ্বাস করতে পারেন। আমি তখনই হোটেলে ঢুকেছি। আশেপাশের সব মানুষ একই কথা বলছিলো। সবাই আরও ওই ছেলেটার উপর ক্ষ্যাপা ছিল। ছেলেটা কেন বেশি বিরক্ত করছিলো, এবং সাকিবকে পিছন থেকে অশালীন মন্তব্য করলো? এখন ফেসবুকে দেখি মানুষ ক্যাপশন দিয়েছে যে, ওটা “নিরাপদ সড়ক চাই” এর ব্যাপারে ছিল। অথচ গতকাল ওইসময় এ ব্যাপারে কোন কথাও হয় নাই!’ ডেইলি স্টার

নিউজটি পড়েছেন 1049 জন

আর্কাইভস