সর্বশেষ:

ধুনটে ৭ ছিনতাইকারীকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ »

ধুনটে ৭ ছিনতাইকারীকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় ছিনতাই করা টাকা ভাগবাটোয়ারা করার সময় ৭ ছিনতাইকারীকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে স্থানীয় জনতা।গতকাল বুধবার (১৬ মার্চ) আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর বগুড়ার আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় আটককৃতরা হলো বগুড়া সদর থানাধীন উত্তর চেলোপাড়া এলাকার আজিজার রহমানের মেয়ে হোসনে আরা (২৫), একই এলাকার মৃত ইকবাল হোসেনের ছেলে খোরশেদ আলম ইরাক (৩০), সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া ঝিকড়া তালুকদারপাড়া এলাকার বাদলের ছেলে সজীব হোসেন ক্যাইলা (৩০), বগুড়ার ধুনট সদরপাড়া এলাকার সাইফুল ইসলামের ছেলে রনি ইসলাম (২৫), তার ভাই রকি ইসলাম (২০), কপিল উদ্দিন মন্ডলের ছেলে মোমিন (১৮), মকবুল হোসেনের ছেলে সৌরভ বাবু (১৮)।

থানা সূত্রে জানা যায়, ধুনট উপজেলার হাঁসাপোটল পশ্চিমপাড়া এলাকার আবুল হোসেনের স্ত্রী রেহেনা খাতুন গত মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) দুপুরে ধুনট অগ্রনী ব্যাংক থেকে ৩ লাখ টাকা উত্তোলন করে বাড়ি ফেরার জন্য ধুনট বাজারের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাশ^বর্ত্তী সিএনজি স্ট্যান্ডে পৌঁছেন। এর কিছুক্ষন পর সিএনজি চালিত অটো রিকসায় ওঠার সময় পিছন থেকে কয়েকজন তাকে ধ্বাক্কা দেয়। তারপর ওই মহিলা দেখেন তার ব্যাগে রক্ষিত রক্ষিত ৩ লাখ টাকার মধ্যে ২ লাখ টাকা নাই। এরপর ওই মহিলা বাড়ি ফিরে তার ছেলেকে ঘটনাটি জানায়।

এদিকে ওইদিন বিকেলে ছিনতাইকৃত টাকা ভাগবাটোয়ারা নিয়ে কান্তনগর বাজারে ছিনতাইকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষের সময় ছিনতাইকৃত টাকাগুলো উড়ে গিয়ে রাস্তায় ছড়িয়ে ছিটিড়ে পড়লে যে যার মতো টাকাগুলো কুঁড়িয়ে নেয়। পরে স্থানীয় লোকজন ৭ ছিনতাইকারীকে গণধোলাই দিয়ে ধুনট থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। এসময় ছিনতাইকারীদের কাছ থেকে ৬৭ হাজার টাকা উদ্ধার করে পুলিশ।

তবে ছিনতাইকারীদের পুলিশ আটক করলেও অজানা ছিল টাকা ছিনতাই হওয়া ব্যক্তির নাম ও ঠিকানা। একারনে মঙ্গলবার রাতে ধুনট থানার ফেসবুক আইডি থেকে হারিয়ে যাওয়া টাকার মালিককে খুঁজতে একটি পোস্ট করেন ওসি কৃপা সিন্ধু বালা। পরে ফেসবুক পোস্ট দেখে ভুক্তভোগিরা থানায় এসে আসামীদের সনাক্ত করেন। এ ব্যাপারে ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা জানান, এঘটনায় ভুক্তভোগি রেহেনা খাতুনের ছেলে আব্দুর রউফ বাদী হয়ে ধুনট থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
নিউজটি পড়েছেন 1493 জন

আর্কাইভস