সর্বশেষ:

ধুনটে পুকুরের পানিতে লাইট সাজিয়ে বৃহৎ পতাকার প্রদর্শনী »

ধুনটে পুকুরের পানিতে লাইট সাজিয়ে বৃহৎ পতাকার প্রদর্শনী

পুকুরের পানিতে ভাসছে দৈর্ঘ্যে ১৬০ ফুট আর প্রস্থে ৯৬ ফুট লাল-সবুজ পতাকা। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বগুড়ার ধুনট উপজেলার একটি পুকুরে এমন ব্যতিক্রমী জাতীয় পতাকা প্রদর্শিত হচ্ছে। পুরো পুকুরে ৯২ হাজারের বেশি বৈদ্যুতিক বাতি বসিয়ে তৈরি করা এই পতাকা গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে স্থান পাবার আশা করছেন আয়োজকরা।

ধুনট পৌরসভার মেয়র জিএম বাদশাহ বলেন, স্বাধীনতার প্রধান একটি প্রতীক হলো পতাকা। এই প্রতীককে ভিন্ন আঙ্গিকে সৃষ্টি করার জন্য একটি কৌশল অবলম্বন করা হয়েছে। সেজন্য পুকুরের নিচে আলো জ্বালিয়ে এটি আমরা করতে পেরেছি।

পতাকার পাশাপাশি পুকুরের পাড় জুড়ে স্থাপন হয়েছে দেশে চলমান মেগা প্রকল্পগুলোর প্রতিরূপ। এর মাধ্যমে উন্নয়ন ও অগ্রগতির বার্তা দেয়ার চেষ্টা পুরো প্রদর্শনীতে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার মহন্ত বলছেন, এর আগে উলম্বভাবে বৈদ্যুতিক বাতি দিয়ে জাতীয় পতাকা প্রদর্শিত হয়েছে। কিন্তু পুকুরের পানিতে অনুভূমিকভাবে এতো বড় পতাকা প্রদর্শন এই প্রথম। এটি বিশ্বরেকর্ডে অন্তর্ভূক্তির প্রত্যাশাও তার।

জাতীয় পতাকার এমন ব্যতিক্রম প্রদর্শনীতে একইসঙ্গে মুগ্ধ এবং আনন্দিত, স্থানীয়রা। স্বাধীনতা দিবসের রাতে উদ্বোধন করা এই আয়োজন চলবে ৩১ মার্চ রাত পর্যন্ত।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
নিউজটি পড়েছেন 362 জন

আর্কাইভস