সর্বশেষ:

ধুনটে কাস্তে দিয়ে কুপিয়ে ভাবিকে জখম করলো দেবর »

ধুনটে কাস্তে দিয়ে কুপিয়ে ভাবিকে জখম করলো দেবর

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে পারভীন আক্তার (৪৫) নামে এক গৃহবধূকে তার দেবর কাস্তে দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। 

রোববার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে উপজেলার মরিচতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

পারভীন আক্তার একই গ্রামের জাহাঙ্গীর সরকারের স্ত্রী। এ ঘটনায় পারভীন আক্তার তার দেবরসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে ধুনট থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পারভীন আক্তারের পরিবারের সাথে তার দেবর বিল্টু সরকারের পরিবারের জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। রোববার সকালে বিল্টু সরকার বাড়ির আঙিনায় পায়ে হাটার রাস্তায় বেড়া দিয়ে যাতায়াতে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে। 

পারভীন আক্তারের পরিবারের ঘর থেকে বের হওয়ার পায়ে হাটার একমাত্র রাস্তা এটি। একারণে বাধ্য হয়ে রাস্তায় বেড়া দেয়ার প্রতিবাদ করেন তিনি। এসময় উভয়পক্ষের মাঝে কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে বিল্টু সরকার ক্ষুব্ধ হয়ে হাতে থাকা কাস্তে দিয়ে পারভীনকে আঘাত করেন। এতে তার ডান হাতে কাটাজখম হয়। 

এসময় পারভীন আক্তারের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে বিল্টু সরকার কৌশলে ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়ে। পরে স্বজনেরা তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা করান। এ ঘটনায় পারভীন আক্তার বাদি হয়ে তার দেবর বিল্টু সরকারসহ তিন জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এ ঘটনায় বিল্টু সরকার বলেন, ‘পারিবারিক বিষয়াদি নিয়ে ভাবির সাথে কথাকাটাকাটি হয়েছে। তাকে কোন প্রকার আঘাত করা হয়নি। আমার বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে।’

ধুনট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মতিউর রহমান বলেন, ‘গৃহবধূর অভিযোগ হাতে পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ জয়যুগান্তর

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
নিউজটি পড়েছেন 1500 জন

আর্কাইভস